hothat dekha bengali poem

Hothat Dekha Bengali Poem (হঠাৎ দেখা) | Popular Rabindranath Thakur

hothat dekha bengali poem

Hothat Dekha Bengali Poem written by Rabindra Nath Tagore. This is Most Popular Poem of Rabindra Nath Tagore. Hothat Dekha Bengali Poem Lyrics voice given by Soumitra Chatterjee for Bengali Movie Praktan, Direction by Nandita Roy and Shiboprosad Mukherjee. Listen Hothat Dekha Bengali Poem on You Tube.

Song Credit:

Bengali Poem: Hothat Dekha
Written by: Rabindra Nath Tagore
Recited by: Soumitra Chatterjee

 

Hothat Dekha Bengali Poem

রেলগাড়ির কামরায় হঠাৎ দেখা,
ভাবিনি সম্ভব হবে কোনোদিন।
আগে ওকে বারবার দেখেছি
লালরঙের শাড়িতে
ডালিম ফুলের মতো রাঙা।

আজ পরেছে কালো রেশমের কাপড়,
আঁচল তুলেছে মাথায়
দোলনচাঁপার মতো চিকন-গৌর মুখখানি ঘিরে।

মনে হল, কালো রঙে একটা গভীর দূরত্ব
ঘনিয়ে নিয়েছে নিজের চার দিকে,
যে দূরত্ব সর্ষে-খেতের শেষ সীমানায়
শালবনের নীলাঞ্জনে।

থমকে গেল আমার সমস্ত মনটা,
চেনা লোককে দেখলেম অচেনার গাম্ভীর্যে।
হঠাৎ খবরের কাগজ ফেলে দিয়ে
আমাকে করলে নমস্কার।

সমাজবিধির পথ গেল খুলে,
আলাপ করলেম শুরু ,
কেমন আছ, কেমন চলছে সংসার, ইত্যাদি।
সে রইল জানলার বাইরের দিকে চেয়ে
যেন কাছের দিনের ছোঁয়াচ-পার হওয়া চাহনিতে।

দিলে অত্যন্ত ছোটো দুটো-একটা জবাব,
কোনোটা বা দিলেই না।
বুঝিয়ে দিলে হাতের অস্থিরতায়
কেন এ-সব কথা,
এর চেয়ে অনেক ভালো চুপ করে থাকা।

আমি ছিলেম অন্য বেঞ্চিতে ওর সাথিদের সঙ্গে।
এক সময়ে আঙুল নেড়ে জানালে কাছে আসতে।
মনে হল কম সাহস নয়,
বসলুম ওর এক-বেঞ্চিতে।

গাড়ির আওয়াজের আড়ালে বললে মৃদুস্বরে,
কিছু মনে কোরো না,
সময় কোথা সময় নষ্ট করবার।
আমাকে নামতে হবে পরের স্টেশনেই,
দূরে যাবে তুমি,
দেখা হবে না আর কোনোদিনই।

তাই যে প্রশ্নটার জবাব এতকাল থেমে আছে,
শুনব তোমার মুখে।
সত্য করে বলবে তো ?
আমি বললেম, বলব।

বাইরের আকাশের দিকে তাকিয়েই শুধোল,
আমাদের গেছে যে দিন
একেবারেই কি গেছে ?
কিছুই কি নেই বাকি ?
একটুকু রইলেম চুপ করে,
তারপর বললেম,
“রাতের সব তারাই আছে
দিনের আলোর গভীরে”।

খটকা লাগল,
কী জানি বানিয়ে বললেম না কি।
ও বললে থাক্‌, এখন যাও ও দিকে।
সবাই নেমে গেল পরের স্টেশনে,
আমি চললেম একা…

Hothat Dekha Poem in English:

Rail garir kamray hothat dekha
Bhabini shombhob hobe konodin.
Agey oke bar-bar dekhechi lal ronger sharite,
dalim fuler moto ranga.

Aaj poreche kaalo reshomer kapor,
anchol tuleche mathay
Dolon-chapar moto chikon gour mukh-khana ghirey

Mone holo, kalo ronge ekta govir durotto
Ghoniye niyache nijer chardike
Je durotto sorshe khetter sash simanaye
Shaal boner nilanjone.

Thomke gelo amr somusto mon-ta
Chena lok-ke dekhlem ochener ghamvirje
Hothat khoborer kagoj fele diye
Amake korle nomoskar.

Somaj-bidhir poth gelo khule,
Alap korlem suru.
Kemon acho, kemon cholche songsar etadhi.
Se roilo janlar bairer dike cheye,
Jeno Kacher-diner choyach per howa chahonite..

Dile ottonto choto duto-ekta jobab
Konota ba dilei na.
Bujhiye dile hather osthirotay,
Keno esob kotha,
Ear cheye onak valo chup kore thaka.

Ami chilem onno benchite
or sathi -der songe,
Ek somoy angul nere janale kache aste.
Mone holo kom sahos noy,
Boslum or-ek benchite.

Garir aowajer arale bolle midhu sore,
Kichu mone korona.
Somoy kotha somoy nosto korbar.
Amake namte hobe porer station-ei
Dure Jabe Tumi,
Dekha hobe na r konodin-e.

Tai je proshnotar jobab etokal theme ache
shunbo tomar mukhe
Sotto kore bolbe to ?
Ami bolley bolbo.

Bairer akasher dike takiye sudholo
Amader geche je din eke barei ki geche
Kichui ki nei baaki ?
Ektuku roilem chup kore Tarpor bollem,
‘Raater shob tarai ache Diner aalor gobhire’.

5/5

Leave a Reply

%d bloggers like this: